বৃহস্পতিবার, ০৯-এপ্রিল ২০২০, ০৭:০৪ অপরাহ্ন
  • জাতীয়
  • »
  • ১৭২ শিক্ষার্থীকে ফেরালে করোনা সংক্রামণের ঝুঁকির আশঙ্কা চীনা রাষ্ট্রদূতের  

১৭২ শিক্ষার্থীকে ফেরালে করোনা সংক্রামণের ঝুঁকির আশঙ্কা চীনা রাষ্ট্রদূতের  

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০৬:০৫ অপরাহ্ন

 

শীর্ষনিউজ, ঢাকা : চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে ১৭২ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে ফিরিয়ে না আনার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত লি জিমিং। তিনি বলেছেন, ‘তাদের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রামণের ঝুঁকি আছে। আমি চাই না বাংলাদেশেও করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ুক।’

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পরে সম্প্রতি চীনের উহান প্রদেশ থেকে ৩১২ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হয়। দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইন শেষে গতকাল রোববার তারা বাড়ি ফিরে গেছেন। বাংলাদেশ সরকার চীনের নাগরিকদের জন্য অন অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে।

লি জিমিং বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চীন থেকে কোনো বাংলাদেশি এলে তাকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে।’ বাংলাদেশে থাকা নাগরিকদের আপাতত চীন ভ্রমণ থেকে বিরত থাকারও পরামর্শ দেন তিনি।

এর আগে গত শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সিলেটের মানিকপীর টিলা এলাকায় এক অনুষ্ঠান শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেন, ‘চীনের হুবেই প্রদেশে থাকা আরও ১৭১ জন বাংলাদেশিকে ফেরত আনার প্রক্রিয়া চলছে। তাদের মধ্যে ৩০ জন নিজেদের অর্থে দেশে ফিরতে রাজি আছেন বলে দূতাবাসে নাম নিবন্ধন করেছেন। তবে আমরা সবাইকেই ফিরিয়ে আনব। এ ব্যাপারে কাজ চলছে।’

এরও আগে গত বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক জানিয়েছিলেন, চীন থেকে আর কাউকে ফেরত আনা হবে না। তবে কেউ অসুস্থ হলে সে দেশেই চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন। 
শীর্ষনিউজ/এসএসআই