মঙ্গলবার, ০২-জুন ২০২০, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন
  • প্রশাসন
  • »
  • আইজিপি হচ্ছেন বেনজীর আহমেদ, র‌্যাবের ডিজি মামুন 

আইজিপি হচ্ছেন বেনজীর আহমেদ, র‌্যাবের ডিজি মামুন 

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:২৮ অপরাহ্ন

শীর্ষ নিউজ, ঢাকা: পুলিশের নতুন মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে নিয়োগ পাচ্ছেন র‌্যাব মহাপরিচালক (ডিজি) ড. বেনজীর আহমেদ। একইসঙ্গে সিআইডি’র প্রধান চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনকে র‌্যাবের মহাপরিচালক নিযুক্ত করতে যাচ্ছে সরকার। 
মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ অনুমোদন দিয়েছেন বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানায়, গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের আইজির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার আগেই নতুন আইজি নিয়োগের জন্য দ্রুত সারসংক্ষেপ পাঠাতে মন্ত্রী ও সচিবকে নির্দেশনা দেন। এরপর গত সোমবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার বাসায় জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, অতিরিক্ত সচিব মু. মোহসিন চৌধুরী, যুগ্মসচিব (পুলিশ-১) ড. মো. হারুন অর রশিদ বিশ্বাস, উপসচিব (পুলিশ-১) ধনঞ্জয় কুমার দাসকে নিয়ে এক বৈঠকে সারসংক্ষেপ তৈরি করেন।

মঙ্গলবার দুপুরের পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব (পুলিশ-১) ধনঞ্জয় কুমার দাস গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবের কাছে সারসংক্ষেপ পৌঁছে দেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সারসংক্ষেপ অনুমোদন করেন।

যে কোনো সময়  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে এই নিয়োগ সংক্রান্ত আদেশ জারি হতে পারে বলে জানা গেছে। আদেশ জারি হলে বেনজীর হবেন দেশের ৩০তম আইজিপি।

আগামী ১৩ এপ্রিল বর্তমান আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারীর মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। তার স্থলে র‌্যাবের মহাপরিচালক ড. বেনজীর আহমেদকে  নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। 

একজন মেধাবী, সৎ ও চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে বেনজীর আহমেদের পরিচিতি রয়েছে। সপ্তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারের কর্মকর্তা বেনজীর আহমেদ ১৯৮৮ সালে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে চাকরিতে যোগ দেন। 
বেনজীর আহমেদ ১৯৬৩ সালের ১ অক্টোবর গোপালগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে উচ্চশিক্ষা অর্জন করেন। এমএ, এমবিএ এবং এলএলবি ছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ থেকে ব্যবসায় প্রশাসনে ডক্টরেট সম্পন্ন করেছেন বেনজীর আহমেদ।

র‌্যাবের ডিজির দায়িত্ব পালনের আগে প্রায় সাড়ে চার বছর ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। তিনি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা বিভাগে চিফ অব মিশন ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট সার্ভিসেস হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত জাতিসংঘ সদর দপ্তরে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন।

দীর্ঘ পেশাগত জীবনে বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এছাড়া  ড. বেনজীর আহমেদ  উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর – ঢাকা মহানগর পুলিশ, সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক- পুলিশ সদর দপ্তর, উপ-মহাপরিদর্শক (অর্থ) এবং উপ-মহাপরিদর্শক (অ্যাডমিন ও অপারেশন) – পুলিশ সদর দপ্তর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। 

সারদা, বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির প্রধান প্রশিক্ষক এবং টাঙ্গাইলের পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের কমান্ড্যান্ট হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

ড. বেনজীর আহমেদ ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে  র‌্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ।

ড. বেনজীর বসনিয়াতে ইউএন মিশন (ইউএনএমআইবিএইচ) এবং কসোভায় ইউএন মিশন (ইউএনএমআইকে) বাংলাদেশ পুলিশ কন্টিনজেন্ট এর কন্টিনজেন্ট কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। কর্মদক্ষতায় তিনবার জাতিসংঘ শান্তি পদক অর্জন করেন। এ ছাড়া তিনি পুলিশের পেশাগত সর্বোচ্চ পদক বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) অর্জন করেন।
 
তিনি দেশ বিদেশ থেকে বিভিন্ন পেশাদার প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেকে অলংকৃত এবং উন্নত করেছেন। 

ইউনাইটেড নেশন তাকে ইউএন পুলিশ বিভাগ পর্যালোচনা করতে বিশ্বব্যাপী স্বতন্ত্র প্যানেলে বিশেষজ্ঞ সদস্য হিসেবে নিযুক্ত করে। 

তিনি দেশ  ও বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক সংস্থার সাথেও যুক্ত। তিনি আইএসিপি ( ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন  অফ চিফস অফ পুলিশ) ইউএসএ, ইন্টারন্যাশনাল পুলিশ অ্যাসোসিয়েশন (আইপিএ) যুক্তরাজ্যের একজন গর্বিত সদস্য।

বেনজীর আহমেদের মতো পেশাদার ও মেধাবী কর্মকর্তা আইজিপি হলে পুলিশে ভিন্নমাত্রা যুক্ত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
শীর্ষ নিউজ/এন